Page images
PDF
EPUB

যবনাধিপতি কহিলেন তােমরাই সাধু তােমাদের দুই জন ব্যতিরেকে অন্য কোন পুরুষ এমত সাহস করিতে পারে। তাহার পর নরসিহদেব সাহস স্ফুরিতবাহ হইয়া বজ্রপাতের ন্যায় কশাঘাতে অশ্বকে শীঘগামী করিয়া এবণ বিপক্ষবর্গের অলক্ষিত হইয়া কাফর রাজের সৈন্যমধ্যে প্রবেশ করিলেন। পরে নরসিহদেব অতিশয় উদ্দীপ্ত শ্বেতচ্ছত্রের তলস্থিত কাফররাজের হৃদয়ে শল্যা পুহার করিলেন। কাফররাজ সেই অস্ত্র প্রহারে প্রাণ ত্যাগ করিয়া ভূমিতে পড়িলেন। সেই কালে চাচিকদেব ভূতলে পতিত এব ত্যাক্ত জীবন সেই কাফররাজের মস্তক চ্ছেদন করিয়া যবনেশ্বরের নিকটে আনিয়া দিলেন। যবনরাজ ছিন্ন মস্তক দেখিয়া জিজ্ঞাসা করিলেন এ মস্তক কাহার। চাচিকদেব উত্তর করিলেন এ মস্তক কাফররাজের। যবনরাজ পুনশ্চ জিজ্ঞাসা করিলেন কোন বীর কাফররাজকে নষ্ট করিয়াছেন। চাচিকদেব উত্তর করিলেন হে রাজাধিরাজ অনুপম পরাক্রম এবং নরশ্রেষ্ঠ নরসিহদেৰ কাফররাজকে নষ্ট করিয়াছেন আমি তাঁহার পশ্চাৎ গমন করিয়া কাফররাজের শিরচ্ছেদন করিলাম। যবনস্বামী পুনৰ্ব্বার জিজ্ঞাসা করিলেন নরসিংহদেব কোথায় আছেন। চাচিকদের কহিলেন হে ভূপাল কাফররাজের সন্নিধিবৰ্ত্তী এবণ স্বামি সহার জন্য কোপে কল্পিত কলেবর এমত বীরগণ কর্তৃক হন্যমান প্রায় নরসিহদেবকে দেখিয়াছি সম্রতি তিনি কোথায় গিয়াছেন এবং কোথায় আছেন তাহা আমি জানি না। সেইক্ষণে যুবনেশ্বর হত নায়ক পলায়মান শত্রু সেনা সকলকে দেখিয়া পরমালাদিত হইলেন এবণ পলায়িত বিপক্ষ সৈন্যের পশ্চাদ্ধামী নিজ সেনাগণকে কহিলেন হে আমার যােদ্ধাগণ তােমরা কেন শত্রু সেনাগণকে নষ্ট করিতেছ সম্রতি আমার রাজ্য রক্ষাকর্তা এবং কাফররাজান্তক যে নরশ্রেষ্ঠ নরসিহদেব

তাহাকে আনিয়া দেও। পরে যবনরাজ অনুসন্ধান করিয়া অনেক নারাচাস্ত্র প্রহারেতে ছিন্ন ভিন্ন শরীর এবং গলিত রুধিরের সহসসহ ধারাতে স্ফুটিত কিংশুক পুষ্পের ন্যায় ও অতিশয় বেদনাতেমচ্ছিত নরসিহদেবকে দেখিয়া তৎক্ষণাৎ ঘােটক হইতে নামিয়া জিজ্ঞাসা করিলেন হে নরসিংহদেব তুমি বাঁচিবা। নরসিহদেব উত্তর করিলেন হে রাজাধিরাজ আমি যাহা করিয়াছি আপনি তাহা অবগত হইয়াছেন। নরপতি প্রত্যুত্তর করিলেন যে চাচিকদেব কহিলেন যে তুমি আমার যে শত্রু বিনাশ করিয়াছ তাহাতেই আমি তােমার সমস্ত কাৰ্য্য জানিয়াছি। নরসিংহদেব কহিলেন আমি যাহার হিতেচ্ছাতে অতিশয় দুঃসাধ্য কৰ্ম্ম স্বীকার করিয়াছিলাম যদি তিনি সে সকল জ্ঞাত হইয়াছেন তাহাতেই আমার শ্রমরূপ বৃক্ষ ফলবান হইল অতএব আমি দীর্ঘ জীবী হইব। তদনন্তর যবনরাজ নরসিহদেবের শরীরে অতিশয় মগ্নবাণ সকল উদ্ধার করিয়া এৰণ নানা প্রকার ঔষধ সেবন ও পথ্য প্রয়ােগেতে অল্প দিনের মধ্যে নরসিহদেবকে অক্ষত শরীর করিলেন। পরে যবনরাজ সহসং উত্তমাশ্ব ও লক্ষং স্বর্ণ আর ছত্র এবণ চামর আর অনেক অর্থ দিয়া নরসিহদেবের পুরস্কার করিলেন। প্রসাদ প্রাপ্ত হইয়া নরসিহদেব যবনরাজকে নিবেদন করিলেন হে রাজাধিরাজ যুদ্ধ করা রাজ পুত্রদের স্বাভাবিক ধৰ্ম্ম আমি কি অদ্ভুত কৰ্ম্ম করিলাম যে আমার এতাদৃশ সম্মান করিলেন সে যাহাহউক যদি আমার পুরস্কার বিহিত হইল তবে চাচিকদেবের সম্মান করুন তিনি সত্য প্রতিপালনের নিমিত্তে মহারাজের নিকটে শত্রুর মস্তক আনয়ন করিয়া ও আমার যশঃপ্রশংসা করিয়াছেন স্বকীয় পুরুষার্থ প্রকাশ করেন নাই ইনি মারণ চিহ্ন যে শত্রু মস্তক তাহা আনিয়াও আমি বৈরি বিনাশ করিয়াছি ইহা কহেন নাই তন্নিমিত্তে প্রথমত চাচিকদেরের পুরস্কার কর্ত্তব্য।

[ocr errors][merged small]

م

افلاطون کي وصیتون کے بیان مین افلاطون کہتا هی که خدا کو پہچان اور اسکے حق کو نگاه ركهه . اور همیشه اپنی همت تعلیم اور تعلم مين مصروف کرو اور اهل علم کے علم کي زیادتی کا امتحان نه کره بلکه شر و فساد سے باز رهنا اختیار کر اور حق تعالی سے ایسی چیز سمت مانگ که آسكي منفعت کي طرف زوال کی راه هو بلکه جو نیکیان که باقي رهتي هين انكي طلب کر همیشه بیدار ره که بدیون

کے بہت سبب هين . اور جو نکیا چاهئے اسے آرزو سے مت مانگ اور جان که بندے سے خدا کا انتقام لینا غضب کے طریق پر نہین بلکه بطريق تادیب اور تہذیب کے هی * اور زندگی پر قانع مت رو جب تک موت نه ارے اور زندگاني کو بهتر مت جان مگر جب کسی چیز حاصل کرنیکا وسیله هره خواب اور اسایش كي رغبت نکر مگر بعد اسکے جب تین چیز کا محاسبه آپ سے تو لے ایک یهه که تو تامل کرے که جس دن جوتون كيا هي تجهسے خطا سرزد هوئي هي یا نہین - دوسري يهه که سوچ که آج کچهه کام کیا هی یا نهين = تيسري يه که کوئی کام تجھ سے بسبب قصور کے رہ گیا هی یا نہین و یاد کرکه اس زندگی کے آگے تو کیا تھا اور بعد اسکے تو کیا هوگا ، اور کسی کو ایذا ندے که عالم کے سب کام زوال اور تغیر کے

مقام مین هین و بدبخت وہ شخص هی جو عاقبت کی یاد سے غافل رهے ۰ اور گناہ سے نچھوتے اور اپنی پونجي اس چیز سے جو تیرے پاس نہر متكره اور مستحقون کو نیکي پہنچانے مین ان کے سوال پر موقوف نرکها اور اسے حکیم مت جان جولذت دنیاوي سے خوش هو یا کسی مصیبت کے سبب جزع و فزع کرے اور همیشه موت کو یاد رکھا اور مردون سے عبرت پکره اور خسيس ادميون کو انکے بہت سے فائدہ بات کرنے اور بغیر پوچھے جواب دینے سے پہچان اور جان که شرير وهي شخص هی که جسنے شرارت اختیار کي هو* خوب سوچ کر بول اور کام کرو اور سب کا دوست رہ جلد غصے مت هوتا خفگي تيري خو نہو جائے اور محتاج کي حاجت کل پر چھور تو کیا جانے كل كيا هوا - قیدیون کي اعانت کر مگر جو خوے بد مین گرفتارر ھے ، جب تک دونونکي بات نہ سمجھ انکے درمیان حکم نه کرفقط قول هي مين حکیم نره بلکه قول وعمل دونومين * إسلئے که حکمت قولي إس جہان مین رھے اور حکمت عملي أس جهان تک پہنچے اور وهان باقي رهے ؟ اور اگر نیکی کے لئے تو رنج کھینچے تو رنج نره پرنیکي رهے اور جو کسي بدي کے سبب تو لذت پاے تو لذت نره اور بدي رہ جاے اور اس دن کو یاد کرکه تجھے پکارین اور تو بولنے سے عاجز رهے کچهه نه سنی اور کچهه نه کہے اور یاد بھی نہ کرسکے

WATTS ON THE IMPROVEMENT OF THE MIND.

Morning Paper. 1. Give a short account of the five methods described by Dr. Watts, of “ improving the Mind in the knowledge of things.”

2. What are the chief points requiring attention in learning a language?

3. What is meant by Memory: how does it differ from Judgment and Reasoning, and what are its uses ?

4. Detail the particular rules laid down by Dr. Watts for the improvement of the Memory.

Afternoon Paper. 5. “Some effects are found out by their causes, and some causes by

Explain and illustrate the meaning of these. their effects.”

6. Enumerate the advantages of reading as a means of improving the mind.

7. What is meant by study? Show that without it no one can really become learned or wise.

8. What general rules, according to Dr. Watts, ought to be observed in all debates or disputes intended to find out truth, or detect error?

Oral Examination.

PROSE.

Tuesday, September 23. He, whose mind is engaged by the acquisition or improvement of a fortune, not only escapes the insipidity of indifference, and the tediousness of inactivity, but gains enjoyments wholly unknown to those, who live lazily on the toil of others; for life affords no higher pleasure than that of surmounting difficulties, passing from one step of success to another, forming new wishes, and seeing them gratified. He that labours in any great or laudable undertaking, has his fatigues first supported by hope, and afterwards rewarded by joy; he is always moving to a certain end, and when he has attained it, an end more distant invites him to a new pursuit.

It does not, indeed, always happen, that diligence is fortunate; the wisest schemes are broken by unexpected accidents; the most constant perseverance sometimes toils through life without a recompence; but labour, though unsuccessful, is more eligible than idleness; he that prosecutes a lawful purpose by lawful means, acts always with the approbation of his own reason; he is animated through the course of his endeavours by an expectation which, though not certain, he knows to be just; and is at last comforted in his disappointment, by the consciousness that he has not failed by his own fault.

That kind of life is most happy which affords us most opportunities of gaining our own esteem; and what can any man infer in his own favour from a condition to which, however prosperous, he contributed nothing, and which the vilest and weakest of the species would have obtained by the same right, had he happened to be the son of the same father.

To strive with difficulties, and to conquer them, is the highest human felicity; the next, is to strive, and deserve to conquer : but he whose life has passed without a contest, and who can boast neither success nor merit, can survey himself only as a useless filler of existence; and if he is content with his own character, must owe his satisfaction to insensibility.

« PreviousContinue »